তাজা খবর:
Home / breaking / দেড় বছর পর ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত
দেড় বছর পর ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত

দেড় বছর পর ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত

ময়মনসিংহ ব্যুরো :শিক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ ক্যাম্পাস। দীর্ঘ দেড় বছর বন্ধের পর সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে
ক্যাম্পাসে আসেন শিক্ষার্থীরা। এরপর স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের ক্লাস শুরু হয়। বহুদিন পর সহপাঠী ও শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা হয়ে উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা। কলেজে ক্লাস শুরুর পাশাপাশি পোস্ট গ্র্যাজুয়েট লিখিত,এমবিবিএস ফাইনাল মৌখিক পরীক্ষা চলছে বলে জানান ময়মনসিংহ মেডিক্যালে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. চিত্তরঞ্জন দেবনাথ ।.

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. চিত্তরঞ্জন দেবনাথ আরো জানান, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৩ সেপ্টেম্বর সকাল থেকে এম-৫৪, ৫৭ ও ৫৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের ক্লাস শুরু হয়েছে। প্রতিটি ব্যাচের শিক্ষার্থী রয়েছে ২২০ থেকে ২৩০ জন। শ্রেণিকক্ষে প্রবেশের আগে প্রত্যেক শিক্ষার্থীর মাস্ক পরা নিশ্চিত করা হয়েছে। এছাড়া থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে তাপমাত্রা মাপা  হয়েছে। শিক্ষার্থীদের হাত ধোয়ার ব্যবস্থাও রয়েছে ক্যাম্পাসে। শ্রেণিকক্ষে প্রতি বেঞ্চে দুই জন করে শিক্ষার্থী বসানো হয়েছে।.

অধ্যক্ষ আরও জানান, প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে করোনাভাইরাসের টিকা নিশ্চিত করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা ক্লাস শুরুর আগে হোস্টেলে আসেন। হোস্টেল খোলে দেয়া হয়েছে। তবে দীর্ঘদিন পর ক্লাস শুরু হলেও ময়মনসিংহ মেডিক্যালে কলেজে তেমন কোনও আয়োজন ছিল না। আগের মতোই স্বাভাবিকভাবে ক্লাস শুরু করা হয়েছে। দীর্ঘদিন পর ক্লাস শুরু হওয়ায় শিক্ষার্থীদের মাঝে উৎসবের আমেজ দেখা গেছে।.

এম-৫৪ ব্যাচের শিক্ষার্থী ফয়সাল জানান, করোনার কারণে ক্লাস বন্ধ থাকায় বাসায় একেবারে বন্দি অবস্থায় ছিলাম। ১৩ সেমেপ্টম্বর থেকে ক্লাস শুরু হওয়ায় মনটা সতেজ হয়ে উঠেছে। ক্লাস বন্ধ থাকাকালীন বন্ধুদের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা হলেও মানসিক তৃপ্তি আসতো না। আজ থেকে সবাইকে আবার আগের মতো করে পাবো।.

এম-৫৮ ব্যাচের শিক্ষার্থী শাম্মী বলেন, দীর্ঘদিন পর সহপাঠী ও শিক্ষকদের সঙ্গে দেখা হওয়ায় খুব ভালো লাগছে। এতদিন ক্লাস বন্ধ থাকায় লেখাপড়ার যে ক্ষতি হয়েছে, ক্লাস চালু হওয়ার পর সেটা পুষিয়ে নেওয়ার জন্য প্রচুর পরিশ্রম করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাসে ফিরে আসতে পেরে সবাই খুবই আনন্দিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Close