তাজা খবর:
Home / আমাদের তথ্য প্রযুক্তি / পাওয়ার ব্যাংক কেনার সময় যেসব বিষয় খেয়াল রাখবেন
পাওয়ার ব্যাংক কেনার সময় যেসব বিষয় খেয়াল রাখবেন

পাওয়ার ব্যাংক কেনার সময় যেসব বিষয় খেয়াল রাখবেন

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক:

স্মার্টফোনের চার্জ প্রায় শেষ! চার্জার থাকলেও বিদ্যুৎ নেই। এমন সমস্যার সহজ সমাধান পাওয়ার ব্যাংক। কয়েকবছর থেকেই স্মার্টফোনের সঙ্গে পাওয়ার ব্যাংকও মানুষের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে উঠেছে।

ঘোরাঘুরির সময় বিদ্যুৎ যদি সহজলভ্য না হয় তাহলে পাওয়ার ব্যাংক তো চাই-ই চাই! ব্যাপক চাহিদার কারণে বাজারে এখন নানা ব্র্যান্ডের পাওয়ার ব্যাংক পাওয়া যাচ্ছে। এগুলোর মধ্যে সেরা কোনটি? বুঝবেন কীভাবে?

চলুন জেনে নেওয়া যাক পাওয়ার ব্যাংক কেনার সময় যেসব বিষয় খেয়াল রাখবেন –

ব্যাটারি ক্যাপাসিটি

আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারি যদি হয় ৩ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার তবে পাওয়ার ব্যাংকের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ৬ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার হলে সবচেয়ে ভাল সার্ভিস পাবেন। অর্থাৎ স্মার্টফোনের চেয়ে অন্তত দ্বিগুণ ব্যাটারি থাকতে হবে পাওয়ার ব্যাংকে। পাশাপাশি স্মার্টফোনের মতোই যেন পাওয়ার ব্যাংকের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি মিলিঅ্যাম্প আওয়ারস তালিকাভুক্ত থাকে কেনার সময় সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

চার্জিং পোর্ট

পাওয়ার ব্যাংকে যত চার্জিং পোর্ট থাকবে আপনি একসঙ্গে ততগুলো ডিভাইস চার্জ দিতে পারবেন। কেমন হয় যদি একটি পাওয়ার ব্যাংক দিয়ে একই সঙ্গে স্মার্টফোন, স্মার্টওয়াচ, ট্যাবলেট, ক্যামেরা চার্জ দেওয়া যায়? এমন সুবিধা পেতে চাইলে পাওয়ার ব্যাংকে কতগুলো চার্জিং পোর্ট রয়েছে তা দেখে কিনবেন।

বিল্ড কোয়ালিটি

একটি পাওয়ার ব্যাংকের কোয়ালিটি নির্ভর করে তার পারফরম্যান্সের উপরে। কত দ্রুত একটি ডিভাইস চার্জ হচ্ছে – সেটি একটি
ভালো পাওয়ার ব্যাংকের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। কম দামের অধিক মিলিঅ্যাম্পিয়ারের পাওয়ার ব্যাংক কেনার পর যদি দেখেন ফোন ঠিকমত চার্জ হচ্ছে না! এমন পাওয়ার ব্যাংক প্রিয় ফোনটাও নষ্ট করে দিতে পারে।

আউটপুট ভোল্টেজ

একটি পাওয়ার ব্যাংক কেনার আগে অবশ্যই নিশ্চিত হোন যেন তার আউটপুট ভোল্টেজ আপনার ডিভাইসে ম্যাচ করে। ডিভাইসের চেয়ে যদি পাওয়ার ব্যাংকের আউটপুট ভোল্টেজ কম হয়, তাহলে সেটি কাজ করবে না।

ভালো ব্র্যান্ড

স্মার্টফোনের মতো পাওয়ার ব্যাংকও ভালো ব্র্যান্ডের হওয়া চাই। আপনার গ্যাজেট যদি দামি হয় তাহলে তা চার্জ করার পাওয়ার ব্যাংকটিও সমান দামি হওয়া উচিত। এমন না হলে চার্জ করার পরিবর্তে আপনার গ্যাজেটও খারাপ হয়ে যেতে পারে।

লিথিয়াম-পলিমার ব্যাটারি

পাওয়ার ব্যাংকে যদি নিম্নমানের পাওয়ার সেল থাকে তাহলে তা ওভারচার্জ করে ডিভাইসকে বিস্ফোরণের দিকে নিতে পারে। তাই পাওয়ার ব্যাংক সব সময় এমন হওয়া উচিৎ, যাতে উচ্চমানের লিথিয়াম-পলিমার ব্যাটারি থাকবে। বাজারে আবার এমন কিছু পাওয়ার ব্যাংক রয়েছে, যেগুলোতে শর্ট সার্কিট এড়ানোর জন্য বিল্ট-ইন প্রোটেকশন থাকে।

ক্যাবল কোয়ালিটি

একটি ভাল মানের চার্জার শুধু যে আপনার ডিভাইস দ্রুত চার্জ করতে পারে এমনটা নয়, ডিভাইসকে পাওয়া সংক্রান্ত যে কোনও সমস্যা থেকেও রক্ষা করতে পারে। ওভারহিটিং থেকেও সুরক্ষিত রাখতে পারে। তাই পাওয়ার ব্যাংকের ক্যাবল যেন ভালো মানের হয় তা অবশ্যই নিশ্চিত করা উচিৎ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close